HomeBlogক্লাউডফ্লেয়ার ব্যবহার করার ৬ টি গুরুত্বপূর্ণ কারন

ক্লাউডফ্লেয়ার ব্যবহার করার ৬ টি গুরুত্বপূর্ণ কারন

এই বছরের শুরুর দিকে ক্লাউডফ্লেয়ারের সাথে আমাদের অফিসিয়াল পার্টনারশিপ হয়। হোস্ট দ্যা ওয়েবসাইট, হোস্টিং এর পারফরমেন্স বাড়ানোর জন্য, হাই কোয়ালিটি টেকনোলজি ও সার্ভার ব্যবহার করেছে। তাই, সাধারনত আমাদের সার্ভার গুলো অনেক ফাস্ট হয়। কিন্তু, ক্লাউডফ্লেয়ার এমন একটি সফটওয়্যার যা আপনার ওয়েবসাইট পারমেন্স কে দ্বিগুন বাড়িয়ে দিতে পারে। শুরুতেই জেনে নেয়া যাক ক্লাউডফ্লেয়ার কিভাবে কাজ করে।

ক্লাউডফ্লেয়ার যেভাব কাজ করে:

ক্লাউডফ্লেয়ারের ৩২ টি দেশে সার্ভার আছে, আপনার ওয়েবসাইটকে যদি ক্লাউডফ্লেয়ারের সাথে ইন্টিগ্রেট করা হয়, তাহলে ক্লাউডফ্লেয়ার আপনার ওয়েবসাইটের ফাইলগুলো।

যেমন: html, css image ফাইলগুলোকে cache করে ওদের সকল সার্ভারে সেভ করে রাখবে। ফলে, যখন মানুষ ওয়েবসাইটে ঢুকবে, তাকে তার কাছের দেশের সার্ভার থেকে রেস্পন্স করানো হবে। নিজের দেশের আশেপাশে সার্ভার থাকায় সার্ভার রেসপন্সে অনেক ইম্প্রুভমেন্ট আসবে।যেমন: আপনি যেকোনো একটি ওয়েবসাইট বাংলাদেশ থেকে ভিজিট করছেন। কিন্তু সার্ভার টি রাখা আমেরিকাতে, তখন ক্লাউডফ্লেয়ার আপনাকে বাংলাদেশের আশেপাশের সার্ভার থেকে রেস্পন্স করাবে। তাই সার্ভার রেসপন্স টাইম অনেক কমে যাবে।

এখন ক্লাউডফ্লেয়ার ব্যবহারের কিছু সুবিধা দেখে নেয়া যাক:

  • ওয়েবসাইট পারফরমেন্স: ক্লাউডফ্লেয়ারের ৩২ টি দেশে সার্ভার থাকায়, এটা ব্যবহার করলে সার্ভার রেসপন্স টাইম অনেক কমে যায়। মাত্রই এই ব্যাপার টি নিয়ে কথা বললাম। ক্লাউডফ্লেয়ার ব্যবহার করলে সাইট পারফরমেন্স ৫০% পর্যন্ত বেড়ে যায়
  • ওয়েবসাইট সিকিউরিটি: হোস্ট দ্যা ওয়েবসাইটে সিকিউরিটি আমাদের অন্যতম প্রায়োরিটি। আমরা সবসময় ওয়েবসাইট সিকিউর করার জন্য কাজ করি। ক্লাউডফ্লেয়ার আপনার ওয়েবসাইটকে মাই এস কিওল ইঞ্জাইংশন, বট আটাক, অতিরিক্ত ক্রলার ভিজিট ইত্যাদি থেকে আপনার ওয়েবসাইটকে রক্ষা করবে। ফলে আপনার ওয়েবসাইট সিকিউর থাকবে।
  • বট এটাক: সাধারনত আপনার ওয়েবসাইট এ তিন ধরনের ভিজিটর থাকে।

    • রিয়েল ভিজিটর
    • বিভিন্ন ক্রলার
    • বট

    ক্লাউডফ্লেয়ার আপনার ওয়েবসাইটে বট ভিজট থেকে দূরে রাখবে। অনেকে কমপ্লেইন করে, যে ক্লাউডফ্লেয়ার রিয়েল মানুষ সাইটে ভিজিট করলেও, ভিজিট করতে দিচ্ছে না। সেজন্য আমার রিকমেন্ডশন হল, ক্লাউডফ্লেয়ার সিকিউরিটি লেভেল লো সিলেক্ট করে দিতে। মিডিয়াম অথবা হাই সিলেক্ট করলে, অনেক সময় নরমাল ভিজিটর এর আইপি ব্ল্যাকলিস্টেড থাকলে তাকে ভিজিট করতে দেয় না।

  • অ্যানালাইটিকস: ক্লাউডফ্লেয়ারের অ্যানালাইটিক্স থেকে আপনি দেখে নিতে পারবেন। কতজন আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিটর করার জন্য চেষ্টা করছে, এবং কতজন আপনার ওয়েবসাইটে ঢুকতে পেরেছে।

  • অফলাইন এভেলেবেলিটি: সাধারনত হোস্টিং ডাউনটাইম ফেস করে খুবই কম। যদি কোন কারনে আপনার সার্ভার ডাউন থাকে, ক্লাউডফ্লেয়ার আপনাকে ওয়েবসাইট cache ভার্সন দেখাবে। যার ফলে সার্ভার ডাউন থাকলেও ওয়েবসাইট, আপ থাকবে।

  • আইপি হাইড: ক্লাউডফ্লেয়ার আপনার ওয়েবসাইটের আইপি কি সেটা হাইড রাখবে।

ওয়েবসাইটের পারফরমেন্স বাড়ানোর জন্য ক্লাউডফ্লেয়ার খুব কাযর্যকরী একটি টুলস। এবং হোস্ট দ্যা ওয়েবসাইটের সকল ক্লায়েন্টের জন্য এটা ফ্রী। একনজরে আমাদের শেয়ার্ড হোস্টিং প্যাকেজ গুলো দেখে নিন।

সাজ্জাদ হোসেন অনীকhttps://hostthewebsite.com/
নিজের ইচ্ছা এবং প্রচেষ্টায় ২০১২ থেকে ওয়েবসাইট ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট নিয়ে কাজ শুরু করি। ওয়েবসাইট সার্ভার এবং সিপ্যানেল নিয়ে কাজ করা ছিল আমার অন্যতম প্যাশনের জায়গা বলা চলে। নিজের প্যাশনের উপর ভিত্তি করে ২০১৫ তে শুরু করি হোস্ট দ্যা ওয়েবসাইট। বিগত দুইবছরে আমাদের টীম আজ ১১ জনে। বাংলাদেশে একটি রিলাইয়েবল হোস্টিং কোম্পানি দ্বারা করাতে কাজ করে যাচ্ছি অনবরত। আমাদের উদ্দ্যেশ্য বাস্তবায়নে আপনাদের সকলের কাছে দোয়াপ্রার্থী।
RELATED ARTICLES

2 COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments